ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারের নিয়ম, সুবিধা ও অসুবিধা

ক্রেডিট কার্ড (Credit card) নগদ টাকার বিকল্পস্বরূপ। বর্তমান সময়ে এটি বিল পেমেন্ট করার নিরাপদ একটি উপায়। আপনার একটি ব্যাংক একাউন্ট থাকলে আপনিও খুব সহজে এই কার্ডটি ব্যবহার করতে পারবেন। তবে এর জন্য ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারের নিয়ম জানা চাই।

ব্যাগে টাকা রাখার চেয়ে ক্রেডিট কার্ড রাখাই উত্তম। কেননা, এটি হারিয়ে গেলে অথবা চুরি হলেও উদ্ধার করা যায়। ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করাও খুব সহজ। চলুন জেনে নেওয়া যাক বিস্তারিত।

ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারের নিয়ম

আপনি যখন নিজের জন্য ইস্যুকৃত একটি ক্রেডিট কার্ড নিবেন, তখন কিছু নিয়ম আপনাকে অনুসরণ করতে হবে। যেহেতু এই কার্ডের মাধ্যমে আপনি লেনদেন করবেন, সেহেতু ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারের নিয়ম ভালোভাবে জানা উচিত। নীচে সহজভাবে বিস্তারিত বর্ণনা করা হলো।

ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারের নিয়ম
ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারের নিয়ম

1. এক্টিভেশন

ক্রেডিট কার্ড গ্রাহকের কাছে একটি লোনস্বরূপ। যখন কোনো ব্যাংক আপনাকে একটি ক্রেডিট কার্ড দিবে তখন প্রথমেই আপনাকে এটি এক্টিভ করতে হবে। কার্ড এক্টিভ না হলে সেটি দিয়ে আপনি লেনদেন করতে পারবেন না। 

2. পাসওয়ার্ড

ক্রেডিট কার্ড অথবা ডেবিট দুই ক্ষেত্রেই শুরুতে আপনাকে ৪ ডিজিটের একটি পিনকোড সেট করতে হবে। তাই ক্রেডিট কার্ড একটিভ করার সময় ৪ ডিজিটের একটি পাসওয়ার্ড সেট করুন এবং নাম্বারটি মনে রাখুন। কখনো এই পিনকোড কাউকে বলবেন না। 

3. প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস সংগ্রহ

ক্রেডিট কার্ড ইস্যু করার সময় প্রয়োজনীয় কিছু ডকুমেন্টস জমা দিতে হয়। ডকুমেন্টসগুলির অনুকপি নিজের কাছে যত্নে রাখবেন। কার্ডের যেকোনো সমস্যা হলে উক্ত ডকুমেন্টসগুলি দরকার হবে। 

4. নিশ্চিন্তে কেনাকাটা

অনলাইনে তো বটেই অফলাইনেও বিভিন্ন স্টোরে ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে পেমেন্ট গ্রহণ করা হয়। ক্রেডিট কার্ড সচল থাকলে অনলাইন ও অফলাইন, যেকোনো জায়গায় আপনি খুব সহজেই বিল পে করতে পারবেন। 

5. ক্রেডিট কার্ডের খরচ ও শর্ত

ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারের উপর কিছু চার্জ প্রযোজ্য থাকে। তাই অবশ্যই এটি ব্যবহারের আগে এর চার্জ ও শর্ত জানুন। 

6. গোপনীয়তা নিশ্চিত করুন

ক্রেডিট কার্ড এর বিভিন্ন ইনফরমেশন খুব সেনসিটিভ একটা বিষয়। মাথায় রাখবেন কোনোভাবেই যেন এই তথ্যগুলো প্রকাশ না হয়। বিশেষ করে আপনার পিনকোডের ক্ষেত্রে খুব সতর্ক থাকবেন।

বিভিন্ন স্ক্যামিং ওয়েবসাইট আছে যেগুলো বিভিন্ন কারণে আপনার কার্ডের তথ্য চেয়ে বসে। এসকল ওয়েবসাইটে তথ্য দেওয়া থেকে বিরত থাকুন। 

ক্রেডিট কার্ডের সুবিধা ও অসুবিধাগুলো কী কী?

আমাদের দেশে প্রায় ১২ লক্ষেরও বেশি মানুষ ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করছেন। ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারের সুবিধাগুলি বিবেচনা করেই অসংখ্য মানুষ এটি ব্যবহার করতে উদ্ধুদ্ধ হচ্ছেন।

ক্রেডিট কার্ডের সুবিধা
ক্রেডিট কার্ডের সুবিধা

তবে অসংখ্য সুবিধার পাশাপাশি এর কিছু অসুবিধাও রয়েছে। ক্রেডিট কার্ডের সুবিধা ও অসুবিধা দুটোই জানা থাকলে আপনি নিশ্চিত এটি ব্যবহার করতে পারবেন। 

ক্রেডিট কার্ডের সুবিধা

  • হাতের নগদ টাকা শেষ হয়ে গেলে ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করে আপনি যেকোনো বিল পে করতে পারেন। 
  • ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে অনেক কম সুদে বেশি টাকা পাওয়া যায়। আপনি ইচ্ছেমতো সেই টাকা খরচ করতে পারেন। পরে শোধ করে দিলেই হয়। 
  • ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারকারীরা বিভিন্ন সময় বিভিন্নরকম অফার পান। অফার অনুযায়ী লেনদেন করতে পারলে অনেক টাকা বাঁচানো যায়। 
  • ক্রেডিট কার্ডের লোনের টাকায় লেনদেন করতে অসুবিধা মনে হলে যেকোনো সময় কার্ডের ধরন পরিবর্তন করা যায়। 
  • ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে লেনদেন করলে বিভিন্ন রিওয়ার্ড পাওয়া যায়। 

ক্রেডিট কার্ডের অসুবিধা 

  • মানুষের খরচ করার প্রবণতা বাড়িয়ে দেয়। ফলে ঋণের পরিমাণ বেড়ে যায়। 
  • সঠিক সময়ে ঋণের টাকা পরিশোধ করতে না পারলে পরবর্তীতে মোটা অংকের সুদ প্রদান করতে হয়। 
  • একজন ক্রেডিট কার্ডের মালিককে বাৎসরিক একটি চার্জ প্রদান করতে হয়, এমনকি কার্ডের মাধ্যমে লেনদেন না করলেও।

আরো পড়ুনঃ ডাচ বাংলা ব্যাংক নেক্সাস কার্ডের সুবিধা ও পাওয়ার উপায়

ক্রেডিট কার্ড পাওয়ার যোগ্যতা?

ক্রেডিট কার্ডে প্রথমে আপনার জন্য কিছু অর্থ ডিপোজিট থাকে। সেই অর্থ আপনি নিজের ইচ্ছামতো খরচ করতে পারেন। পরবর্তীতে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে এই ঋণ ব্যাংকে পরিশোধ করতে হয়। 

credit card
credit card

ক্রেডিট কার্ডের এরূপ সুবিধার জন্য অনেকেই ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারে আগ্রহী হচ্ছে। আপনিও চাইলে ক্রেডিট কার্ড পেতে পারেন। নীচে জেনে নিন বিস্তারিত। 

১. ক্রেডিট কার্ড পেতে হলে প্রথমে আপনাকে একটা ব্যাংক একাউন্ট ক্রিয়েট করতে হবে। 

২. একাউন্ট খোলার পর আপনার একাউন্টে নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা রাখতে হবে। 

৩. একাউন্টে টাকা জমা রাখার পর ব্যাংক কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করতে হবে ক্রেডিট কার্ড এর জন্য। 

৪. এরপর তারা আপনার আয়ের উৎস ও কার্ড পাওয়ার যোগ্যতা যাচাই করে আপনাকে একটি ক্রেডিট কার্ড ইস্যু করবে। 

৫. এরপর প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস জমা দেওয়ার মাধ্যমে আপনি ক্রেডিট কার্ড পেয়ে যাবেন। 

ক্রেডিট কার্ড কীভাবে পাবো?

অন্যান্য দেশের মতোই আমাদের দেশে ক্রেডিট কার্ড এর জন্য আবেদনকারীর কিছু সাধারণ যোগ্যতা যাচাই করা হয়। যেকোনো পেশার মানুষ যাদের আয় ও বৈধ কর শনাক্তকরণ নাম্বার টিআইএন আছে, তারা সহজেই ক্রেডিট কার্ড পেতে পারেন। এছাড়াও আরো কিছু প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস রয়েছে সেগুলো নীচে উল্লেখ করা হলো। 

  • জাতীয় পরিচয় পত্র। 
  • টিআইএন (TIN) সার্টিফিকেট। 
  • চাকুরিজীবীদের জন্য আ্যাপোয়েন্টমেন্ট লেটার, স্যালারি সার্টিফিকেট এবং ৩ মাসের ব্যাংক স্টেটমেন্ট দেখাতে হবে৷ 
  • এবং ব্যবসায়ীদের জন্য ট্রেড লাইসেন্স, Memorandum of Association ৩ মাসের ব্যাংক ট্রানজেকশন স্টেটমেন্ট প্রয়োজন হবে। 

এছাড়াও আপনার যদি আগে থেকেই কোনো ব্যাংকে ফিক্সড ডিপোজিট থাকে তবে সেখানে আবেদন করার মাধ্যমে আপনি ক্রেডিট কার্ড পেতে পারেন। 

ক্রেডিট কার্ড সম্পর্কিত আরোকিছু প্রশ্নাবলী

প্রশ্ন: ক্রেডিট কার্ড কী?

উত্তর: ক্রেডিট কার্ড হলো একধরনের প্লাস্টিক কার্ড যা ব্যাংক থেকে ইস্যু করা হয়। এই কার্ডে আপনি কোনো টাকা ডিপোজিট না করেই কেনাকাটা বা যেকোনো বিল পরিশোধ করতে পারবেন। পরবর্তীতে নির্দিষ্ট সময় পর এই লোনটি আপনাকে পরিশোধ করতে হবে৷ 

প্রশ্ন: ক্রেডিট কার্ড থেকে টাকা তোলা যায়?

উত্তর: বিকাশ বা রকেটের মতো ক্রেডিট কার্ড থেকে কোনো প্রকার টাকা তোলা যায় না। এই কার্ডের মাধ্যমে আপনি শুধু টাকা পে করতে পারবেন। 

প্রশ্ন: কোন ব্যাংকের ক্রেডিট কার্ড ভালো? 

উত্তর: আপনার ব্যবহারবিধির উপর নির্ভর করবে কোন ব্যাংকের ক্রেডিট কার্ড ভালো। কোনো কোনো ব্যাংক অল্প পরিমাণ টাকা ডিপোজিট করবে তো কোনো ব্যাংক বিপুল পরিমাণ। ঋণের উপর নির্ভর করে সুদের তারতম্য হবে। তাই আপনার প্রয়োজনের উপর ভিত্তি করে কোন ব্যাংকের কার্ড ভালো তা আপনি নির্ধারণ করতে পারবেন।

শেষ কথা

ক্রেডিট কার্ড সম্পর্কিত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো আমরা আজকের পোস্টে তুলে ধরলাম। ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারের নিয়ম ঠিকমতো জানলে আপনি অনায়াসেই এটি ব্যবহার করতে পারবেন। 

ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারের সুবিধাগুলি আমাদের দৈনন্দিন জীবনে বেশ কাজে আসে। তাই আপনিও সঠিক নিয়ম মেনে আপনার জন্য ক্রেডিট কার্ড নিয়ে প্রতিনিয়ত এটি ব্যবহার করতে পারেন। 

এছাড়া আপনার মনে কোনো প্রশ্ন থাকলে আমাদের কমেন্ট বক্সে জানাতে পারেন। আমরা অতি শীঘ্রই উত্তর নিয়ে আপনার নিকট হাজির হবো।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

4 × 3 =

Scroll to Top